Description

কুশিকাটার কাজ শিখি ছোটবেলায় শেখার পর। পড়াশোনার পাশাপাশি কাজ করেছি নিজের বাসার জন্য নিজের জন্য। প্রতিবেশী /আত্মীয়-স্বজন কাজের প্রশংসা করতেন। তার পর থেকে পড়াশোনার পাশাপাশি কাজ করেছি। সব সময় ইচ্ছে ছিলো ইউনিক কিছু করবো সিম্পিলের মধ্যে দারুন কিছু। ২০১৪ সাল থেকে কাজ শুরু করি একজন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা হিসেবে। কাজের প্রশংসা পেলেও উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য প্রচুর খারাপ কথা শুনতে হয়েছে। প্রথম দিকে খারাপ লাগতো কিন্তু কষ্টটাকে কাজের উপর আসতে দেইনি। অনেক চড়াই-উতরাই এসেছে থেমে যায়নি নিজের পরিচয় হবে একজন উদ্যোক্তা এই কথাটার উপর ভিত্তি করে টিকে ছিলাম। অনলাইনে অল্প সংখ্যক মানুষ জানতো আমি বিজনেস করি। একদিন এক ফ্রেন্ড বললো অনলাইন পেজ ওপেন করতে পেজ গ্রুপ খুব একটা বুঝিনা কাউকে জিজ্ঞেস করলে বলতে চায় না ভাবলাম প্রথম থেকেই যেহেতু আমার উদ্যোগে আমি একা চলতে পেরেছি বাকি পথটাও ইনশাআল্লাহ পারবো। তখন থেকেই আসতে আসতে কিছুটা বড় করলাম আমার বিজনেস। এর পর থেকেই বেশি সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি আশেপাশের মানুষ আত্মীয়স্বজন সবাই বেশি কথা বলা শুরু করে আমাকে আমার ফ্যামেলি কে শুনেছি। তখন জেদটা আরও জোড়ালো হলো তাদের কথার জবাব আমার সফলতা দিয়েই দিতে হবে আলহামদুলিল্লাহ টুকটাক পড়াশোনার পাশাপাশি কাজ করেছি পরিবারের থেকে লুকিয়ে। লকডাউনের পর আরও বেশি বিপদে পরলাম পরিবারের থেকে লুকাবো কি করে। তখনই যুক্ত হলাম উদ্যোক্তা মেলা গ্রুপে সবার সংগ্রাম দেখে আবারও শুরু করলাম সবাই উৎসাহিত করেছেন । উদ্যোক্তা মেলার আমার লেখা, আমার কাজের রিভিউ আমার আব্বু আম্মু পড়েন গর্ব করে সবাইকে বলেন আলহামদুলিল্লাহ এখন আব্বু নিজেই বলে দেন আমার কোথায় কি বেটার করতে হবে।