Description

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিল্প-মনোবিজ্ঞানে মাস্টার্স শেষ করার পর কাউন্সেলিংকে পেশা হিসেবে নিয়েছি… কাজ করছি একটা প্রাইভেট ফার্মে… পছন্দের পোষাকের শীর্ষে শাড়ী বরাবরই….খুউব ছোট বেলা থেকেই আম্মুর ভাঁজ করে রাখা শাড়ী আর দিদির ওড়না দিয়েই আমার শাড়ী পরার গল্পটা শুরু… শাড়ী পাগল আমি পুরো ভার্সিটি লাইফটা টাকা জমিয়ে জমিয়ে শাড়ী কিনতাম… কিন্তু খুব একটা কেনা হতো না…তবুও কিনতাম কারণ মন খারাপ হলে শাড়ীগুলো নেড়েচেড়ে দেখলেও ভাল্লাগে… ভার্সিটি লাইফের সেই দুঃখ থেকেই শাড়ীর কাজ শুরু করেছি, যাতে আমার মতো শাড়ী পাগলরা শাড়ী কিনতে পারে আরকি…আর তাই বিনিময় মূল্য রাখার চেষ্টা করেছি হাতের নাগালে… আমার নিজেকে আমার প্রচুর পছন্দ… আমার জন্মদিন ৩০ ডিসেম্বর আর তাই ১-৩০ তারিখ পর্যন্ত নিজেকে প্রতিদিন ১টা করে গিফট দেই ইনকাম করার পর থেকে প্রতিবার… ২০১৯ এ জন্মদিনে একটা গিফট ছিলো আমার শাড়ীর পেইজ… আমার নামেই… আর এক বছর পরে এতে যুক্ত হয়েছে পাঞ্জাবি আর গয়না… আমি সিন্ধু উদ্যোগের নাম সিন্ধু। আর সিন্ধুর এই সিন্ধুতে হাল ফ্যাশনের সাথে তাল মিলিয়ে টাইপোগ্রাফি থাকছে শাড়ী পাঞ্জাবি কিংবা গহনা জুড়ে… দেশীয় শাড়ী-পাঞ্জাবি কিংবা গয়নার টাইপোগ্রাফিতে বেশ সারা পাচ্ছি… দেশীয় শিল্পকে এগিয়ে নিতে এই উদ্যোগ অব্যাহত রাখতে চাই…

Photos